ফাতওয়া  নং  ২২১

স্বামীর কুরবানি কি স্ত্রীর পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে? -মুফতি আবু ‍মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আলমাহদি (হাফিযাহুল্লাহ)

স্বামীর কুরবানি কি স্ত্রীর পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে? -মুফতি আবু ‍মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আলমাহদি (হাফিযাহুল্লাহ)

পিডিএফ ডাউনলোড করুন

ওয়ার্ড ডাউনলোড করুন

স্বামীর কুরবানি কি স্ত্রীর পক্ষ থেকে যথেষ্ট হবে?

 

প্রশ্নঃ

আমার স্ত্রীর মালিকানায় প্রায় ৩/৩.৫ ভরির মতো স্বর্ণ আছে। একটি ডায়মন্ডের নাক ফুল ও একটি রূপার নুপুরও আছে। এমতাবস্থায় তার ওপর কি কুরবানি ওয়াজিব হবে? না, আমি কুরবানি দেওয়ার সময় পরিবারের পক্ষ থেকে আদায় করলে তারটাও আদায় হয়ে যাবে?

উত্তরঃ

بسم الله الرحمن الرحيم

الحمد لله والصلاة والسلام على رسول الله، أما بعد:

নেসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হলে পুরুষ মহিলা সকলের ওপর কুরবানি ওয়াজিব হয়। নগদ অর্থ ও অন্যান্য সম্পদ নেসাব পরিমাণ থাকলে যেমন কুরবানি ওয়াজিব হয়, তেমনি ব্যবহৃত সোনা রূপার অলংকার নেসাব পরিমাণ হলেও কুরবানি ওয়াজিব হয়। আপনার স্ত্রীর স্বর্ণ ও রূপার নুপুরের সম্মিলিত মূল্য যেহেতু নেসাব তথা সাড়ে বায়ান্ন তোলা রূপার মূল্য থেকে বেশি, সুতরাং তার উপরও কুরবানি ওয়াজিব।

আপনার উপর কুরবানি ওয়াজিব হয়ে থাকলে আপনি ও আপনার স্ত্রী উভয়কে একটি করে দুটি কুরবানি দিতে হবে। আপনার নিজের কুরবানি দ্বারা স্ত্রীর কুরবানি আদায় হবে না। অবশ্য তার সম্মতিতে তার কুরবানি আপনি আদায় করে দিলে, তাতেও আদায় হয়ে যাবে। -বাদায়েউস সানায়ে’ ২/২৮, ৫/৬৪; রদ্দুল মুহতার ৬/৩১৫

فقط، والله تعالى أعلم بالصواب

আবু মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আলমাহদি (উফিয়া আনহু)

০৯-০৫-১৪৪৩ হি.

১৪-১২-২০২১ ঈ.