যাকাত-ফিতরা:

কতটুকু সম্পদ থাকলে সাদাকাতুল ফিতর ওয়াজিব হয়?

কতটুকু সম্পদ থাকলে সাদাকাতুল ফিতর ওয়াজিব হয়?

কতটুকু সম্পদ থাকলে সাদাকাতুল ফিতর ওয়াজিব হয়?

কতটুকু সম্পদ থাকলে সাদাকাতুল ফিতর ওয়াজিব হয়?

পিডিএফ ডাউনলোড করুন

ওয়ার্ড ডাউনলোড করুন

প্রশ্ন-১

সাদাকাতুল ফিতর ওয়াজিব হওয়ার জন্য কতটুকু সম্পদ থাকা যথেষ্ট?

প্রশ্ন-২ কারও কাছে প্রয়োজনের অতিরিক্ত কিছু জমি আছে। ওই জমির উপর তার সংসার চলা নির্ভর করে না এবং তা ব্যবসার জন্যও না। এমন জমির উপর তো যাকাত ওয়াজিব হয় না। প্রশ্ন হলো, এমন ব্যক্তি যদি নেসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক না হয় তাহলে তার জন্য কি অন্যের যাকাত গ্রহণ করা জায়েয হবে?

-আবদুল মুমিন

উত্তর:

بسم الله الرحمن الرحيم

حامدا ومصليا ومسلما

০১. হাওয়ায়েজে আসলিয়াহ তথা ঋণ ও অন্যান্য প্রয়োজন (যেমন বাসস্থান, পোশাকপত্র, প্রয়োজনীয় আসবাব-সামগ্রী, নিজের এবং যাদের খরচ বহন তার দায়িত্ব তাদের ভরণ-পোষণ)- এর অতিরিক্ত নেসাব পরিমাণ (অর্থাৎ সাড়ে বায়ান্ন তোলা রুপা বা সমমূল্যের) যেকোনো সম্পদ থাকলে সাদাকাতুল ফিতর ও কুরবানী ওয়াজিব এবং তার জন্য যাকাতসহ সব ধরনের ওয়াজিব সাদাকা (সাদাকাতুল ফিতর, মান্নত, কাফফারা, কুরবানীর পশুর চামড়া বিক্রির অর্থ) গ্রহণ করা নাজায়েয। উক্ত নেসাব যাকাতযোগ্য সম্পদ (তথা স্বর্ণ-রুপা, টাকা-পয়সা বা ব্যবসার মাল) থেকে হওয়া আবশ্যক নয়, বরং যে কোনো সম্পদ থেকে হওয়াই যথেষ্ট এবং তার উপর এক বছর অতিক্রান্ত হওয়াও শর্ত নয়।[1]

হাওয়ায়েজে আসলিয়াহ সম্পর্কে জানতে দেখুন:

ফাতওয়া নং ২৪৩ ‘হাওয়ায়েজে আসলিয়াহ’ বলে উদ্দেশ্য কী?

০২. প্রশ্নোক্ত জমির মূল্য এবং হাওয়ায়েজে আসলিয়াহর অতিরিক্ত অন্যান্য সম্পদ (যদি থাকে) সব মিলিয়েও নেসাব পরিমাণ না হলে যাকাত ও অন্যান্য ওয়াজিব সাদাকা গ্রহণ করতে পারবে। নেসাব পরিমাণ হয়ে গেলে গ্রহণ করতে পারবে না।

فقط، والله تعالى أعلم بالصواب

মুস্তাফা মাহমুদ (গুফিরা লাহু)

সম্পাদনা: মুফতি আবু মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ আলমাহদি হাফিযাহুল্লাহ

০৪-১১-১৪৪৫ হি.

১২-০৫-২০২৪ ঈ.

 

 

[1]   وَاعْلَمْ أَنَّ الْغَنِيَّ عَلَى مَرَاتِبَ ثَلَاثَةٍ: … وَغَنِيٌّ يَحْرُمُ عَلَيْهِ السُّؤَالُ وَالْأَخْذُ وَيُوجَبُ عَلَيْهِ صَدَقَةُ الْفِطْرِ وَالْأُضْحِيَّةُ، وَهُوَ أَنْ يَمْلِكَ مَا قِيمَتُهُ نِصَابٌ فَاضِلًا عَنِ الْحَوَائِجِ الْأَصْلِيَّةِ مِنْ غَيْرِ أَمْوَالِ الزَّكَاةِ كَالثِّيَابِ وَالْأَثَاثِ وَالْعَقَارِ وَالْبِغَالِ وَالْحَمِيرِ وَنَحْوِهِ. -الاختيار لتعليل المختار (1/ 122)

الدر المختار وحاشية ابن عابدين (رد المحتار) (2/ 360) من باب صدقة الفطر: (ذِي نِصَابٍ فَاضِلٍ عَنْ حَاجَتِهِ الْأَصْلِيَّةِ) كَدَيْنِهِ وَحَوَائِجِ عِيَالِهِ (وَإِنْ لَمْ ينم) كَمَا مَرَّ (وَبِهِ) أَيْ بِهَذَا النِّصَابِ (تَحْرُمُ الصَّدَقَةُ) كَمَا مَرَّ، وَتَجِبُ الْأُضْحِيَّةُ وَنَفَقَةُ الْمَحَارِمِ عَلَى الرَّاجِحِ. … (قَوْلُهُ: وَإِنْ لَمْ يَنْمُ) يُقَالُ نَمَا يَنْمِي وَيَنْمُو كَذَا فِي الْإِسْقَاطِيِّ فَهُوَ مَجْزُومٌ بِحَذْفِ الْيَاءِ أَوْ الْوَاوِ ط (قَوْلُهُ كَمَا مَرَّ) أَيْ فِي قَوْلِهِ: وَغَنِيٌّ يَمْلِكُ قَدْرَ نِصَابٍ وَقَدَّمْنَا بَيَانَهُ ثَمَّةَ (قَوْلُهُ: تَحْرُمُ الصَّدَقَةُ) أَيْ الْوَاجِبَةُ أَمَّا النَّافِلَةُ فَإِنَّمَا يَحْرُمُ عَلَيْهِ سُؤَالُهَا، وَإِذَا كَانَ النِّصَابُ الْمَذْكُورُ مُسْتَغْرَقًا بِحَاجَتِهِ، فَلَا تَحْرُمُ عَلَيْهِ الصَّدَقَةُ وَلَا يَجِبُ بِهِ مَا بَعْدَهَا (قَوْلُهُ: كَمَا مَرَّ) أَيْ فِي قَوْلِهِ أَيْضًا وَغَنِيٌّ. اهـ

الدر المختار وحاشية ابن عابدين (رد المحتار) (6/ 312) من كتاب الأضحية: وَشَرْعًا (ذَبْحُ حَيَوَانٍ مَخْصُوصٍ بِنِيَّةِ الْقُرْبَةِ فِي وَقْتٍ مَخْصُوصٍ. وَشَرَائِطُهَا: الْإِسْلَامُ وَالْإِقَامَةُ وَالْيَسَارُ الَّذِي يَتَعَلَّقُ بِهِ) وُجُوبُ (صَدَقَةِ الْفِطْرِ) كَمَا مَرَّ. … (قَوْلُهُ وَالْيَسَارُ إلَخْ) بِأَنْ مَلَك مِائَتَيْ دِرْهَمٍ أَوْ عَرْضًا يُسَاوِيهَا غَيْرَ مَسْكَنِهِ وَثِيَابِ اللُّبْسِ أَوْ مَتَاعٍ يَحْتَاجُهُ إلَى أَنْ يَذْبَحَ الْأُضْحِيَّةَ. اهـ

وأما الغنى الذي يحرم به أخذ الصدقة وقبولها فهو الذي تجب به صدقة الفطر والأضحية وهو أن يملك من الأموال التي لا تجب فيها الزكاة ما يفضل عن حاجته وتبلغ قيمة الفاضل مائتي درهم من الثياب والفرش والدور والحوانيت والدواب والخدم زيادة على ما يحتاج إليه كل ذلك للابتذال والاستعمال لا للتجارة والإسامة، فإذا فضل من ذلك ما يبلغ قيمته مائتي درهم وجب عليه صدقة الفطر والأضحية وحرم عليه أخذ الصدقة. -بدائع الصنائع في ترتيب الشرائع (2/ 48)

قال – رحمه الله – (وغني بملك نصاب) أي لا يدفع إلى غني بسبب ملك نصاب وإنما قال بملك نصاب لأن الغنى على ثلاث مراتب: الأولى ما يتعلق به وجوب الزكاة والثانية ما يتعلق به وجوب صدقة الفطر والأضحية وهو أن يكون مالكا لمقدار النصاب فاضلا عن حوائجه الأصلية وهو المراد هنا لأن حرمان الزكاة يتعلق به. -تبيين الحقائق شرح كنز الدقائق (1/ 302) وفي حاشية الشلبي: (قوله وغني بملك نصاب إلى آخره) قال في الهداية أي من

Related Articles

Back to top button